অনন্ত’র আত্মকথন

2
114

রিমি : চলো আজ ঘুরে আসি….
অনন্ত: কোথায় যাবি??
রিমি: যেখানে ইচ্ছা….
দু’জন মিলে বের হয়ে চন্দ্রিমা উদ্যানে গিয়ে বসলো…
রিমি: একটা সিগারেট নাওনা…
অনন্ত: মারবো একটা চড়…
কিছুক্ষন পর নিজে থেকে উঠে গিয়ে বেনসন নিয়ে আসলো….চলবে??
রিমি: দৌড়াবে…..কিছুটা টেনে..একদম শিমুলের মুখ থেকে যে গন্ধটা আসে…ঠিক তেমন…ও মনে হয় বেনসন খায়!!
অনন্ত: তুই শিমুলের সাথে…???
রিমি: তো কি হয়েছে? ইচ্ছা করেছে, তাই…

অনন্ত রেগে ওখান থেকে উঠে সোজা চলে গেলো!! রিমি পিছন পিছন দৌড়াচ্ছে….!!!

বেশ কিছুদিন কথা নেই দু’জনার, কারণ অনন্ত ভীষন জেদি, মুখে কিছু না বললেও ভিতরে ভিতরে অনেক রাগ পুষে রাখে…..

রিমির বাবা অনেক বড় ইন্ডাস্ট্রিয়ালিষ্ট, বড় বড় মাস্তান পুষে…আজকে অনন্ত ঠিক করেছে রিমির বাবাকে রিমি-শিমুলের বিষয়টা বলে দেবে…আচ্ছা মতন ধোলাই খাইয়ে নেবে… অনন্ত বাসায় ঢোকার সাথেই রিমির ইশারা; উল্টা-পাল্টা কিছু করবানা….
রিমির বাবা বন্ধু সহ আড্ডা দিচ্ছিলেন, কি রে অনন্ত কোনটা খাবি?? ছোটটা না বড়টা? বিয়ার হলেই চলবে….!! যা ফ্রিজে রাখা আছে, নিয়ে আয়..অনন্ত চান্সে ২টা নিয়ে আসলো….. ঢক…ঢক…আস্তে খা….তুই মনে হচ্ছে….আরো খাবি??? যা নিয়া খা…. অনন্ত আরেকটা নিয়ে আসলো…অাঙ্কেল…কি রে কিছু বলবি?? নাহ রিমির ব্যাপারে….কিছুটা বলে মাথা নিচু করলো, রিমির ততক্ষনে অবস্থা বেগতিক!!! নাহ মানে ও ইদানিং ক্লাসে রেগুলার না!! তুই কি করস?? ওর কান ধরে নিয়ে যাবি….এখন যা দ্যাখ পাজিটা কি করছে…আর শোন: কিছুক্ষন পর আমি আর তোর আন্টি বাইরে যাচ্ছি, ফিরতে দেরি হবে…ততক্ষন তুই যাবিনা…ওকে আঙ্কেল…..সেদিন অনন্ত; রিমিকে বুঝিয়ে দিয়েছিলো, সে অবহেলার পাত্র নয়….যতটা প্রাপ্য, ঠিক আদায় করে নিয়েছিলো……

চলবে…..

2 মন্তব্য

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here